পুরুষের সক্ষমতা বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায় । কাম শক্তি বৃদ্ধির ১৫ টি উপায়

লাল আপাঙ্গের গাছ সোমবারে জাগান দিয়ে মঙ্গলবার সকালে বাসি মুখে তুলে উক্ত শিকড়কে মাদুলীতে ভরে কোমড়ে বেঁধে রাখলে শুক্র স্তম্ভন হয় ।
মেয়েদের কাম শক্তি বৃদ্ধির ঔষধ, মেয়েদের কাম শক্তি বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায়, সেক্সে বৃদ্ধির উপায় কি ওষুধ, ছেলেদের কাম শক্তি বৃদ্ধির ঔষধ, কাম শক্তি বৃদ্ধির গাছ, সেক্সে বৃদ্ধির ব্যায়াম, পুরুষত্ব বৃদ্ধির উপায়, পুরুষের সক্ষমতা বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায়, পুরুষের সক্ষমতা বৃদ্ধির ঔষধ, মেয়েদের কাম শক্তি বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায়, যৌবন শক্তি বৃদ্ধির আমল, সেক্সে বৃদ্ধির উপায় কি ওষুধ, সেক্সে বৃদ্ধির খাবার, সহবাসে স্থায়িত্ব বৃদ্ধির উপায়, যৌবন শক্তি বৃদ্ধির গাছ, সেক্সে বৃদ্ধির ব্যায়াম, দীর্ঘ সময় মিলন করার ইসলামিক পদ্ধতি, পুরুষের স্থায়িত্ব বৃদ্ধির উপায়, মেয়েরা কত সময় মিলন করতে পারে, স্থায়িত্ব বৃদ্ধির ঔষধ, সহবাসের আনন্দ পাওয়ার উপায়, স্থায়িত্ব বৃদ্ধির হোমিও ঔষধ, দীর্ঘ সময় সহবাস করার প্রাকৃতিক ঔষধ, সঙ্গম করার পদ্ধতি ।


যে সমস্ত লোকের রতিশক্তি অর্থাৎ পুরুষত্ব শক্তি খুব কম অর্থাৎ পূর্বে হয়ত রতিক্রিয়া শক্তি ছিল, কিন্তু কোন প্রকার অসুখ বশতঃ তা অল্প হয়ে গেছে অথবা একেবারে লোপ পেয়েছে । আবার অনেকে হয়ত অল্পমাত্র রতিশক্তি আছে । কিন্তু বীর্য ধারনের শক্তি নাই । সেই সমস্ত ব্যক্তির একান্ত উচিৎ যে নিম্নলিখিত ঔষধগুলি প্রস্তত করে সেবন করা ।


দীর্ঘ সময় সহবাস করার প্রাকৃতিক ঔষধ

১। শিমূল ফুলের রস আধ তোলার সঙ্গের কিঞ্চৎ চিনি মিশিয়ে কিছু দিবস যাবৎ পান করলে বলবীর্য বৃদ্ধি পায় ।

২। ভুঁই কুমড়ার চুর্ণকে উক্ত ভুঁই কুমড়ার রসের দ্বারা সাতবার ভাবনা দিবে । তারপর উক্ত চুর্ণের এক তোলা আন্দাজের সঙ্গে কিঞ্চিৎ ঘৃত এবং মধু মিশ্রিত করে ২১ দিন পর্যন্ত সেবন করলে বলবীর্য বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয় ।


৩। আমলকী ফলের চুর্ণকে আমলকীর রসের দ্বারা সাতবার ভাবনা দিয়ে দুই রতি পরিমান বড়ি তৈয়ার করবে । আর উক্ত বড়ির একটিকে নিয়ে অল্প ঘৃত এবং চিনির সঙ্গে সেবন করবে । এরূপে দুই সপ্তাহ পর্যন্ত সেব্য । প্রতি দিন দুইটি করে বড়ি সেবন করবে । এই ঔষধ সেবনে পুরুষ বৃদ্ধ হলেও যুবকের ন্যায় স্ত্রী-সংযম করতে পারবে ।

৪। পুরাতন শিমুল শিকড়ের রস দুই তোলা নিয়ে উহার সহিত অল্প চিনি মিশিয়ে প্রত্যহ সেব্য । এইরূপে দুই সপ্তাহ হতে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত সেবন করলে পুরুষ অতিশয় বলবান হয় ।

যৌবন শক্তি বৃদ্ধির গাছ

৫। যষ্টিমধু চূর্ণ দুই তোলার সঙ্গে ঘৃত এবং মধু দিয়ে প্রত্যহ সেবন করবে । এই রূপে দুই সপ্তাহ সেবন করলে বলবীর্য বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয় ।


৬। ছোট চারা শিমুল মূল এবং তালমূলী বা তাল মাখনা গাছের শিকড় চূর্ণ করে প্রত্যহ এক তোলা করে চিনি দিয়ে সেব্য । এরূপে দু হতে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত সেবন করলে বৃদ্ধ যুবশশক্তি লাভ করে ।

৭। ভুঁই কুমড়ার ফল এবং শিকড় চুর্ণ আধ তোলা ঘৃত এবং দুগ্ধ মিশিয়ে কিছু দিবস সেবন করলে বৃদ্ধ যুবশক্তি লাভ করে ।

৮। ছাগলের গোস্ত দুধ এবং ঘিয়ের সঙ্গে সিদ্ধ করে শিমুল মূল চূর্ণ এবং সৈন্ধব লবন চূর্ণ মিশ্রিত করে সেবন করলে পুরুষ অতিশয় রমণাক্ষম হয় ।

৯। তিল চূর্ণ ছাগী দুধের দ্বারা সাতবার ভাবনা দিয়ে সেবন করলে বিশষ উপকার হয় ।

১০। পুঁই শাক গাছের শিকড়কে নিয়ে উত্তমরূপে পেষন করে এক পোয়া পানির সঙ্গে মিশিয়ে ফেটে সমস্তটি পান করবে । পরে কাচা মুগের ডালকে ভিজিয়ে চিনি দিয়ে তিন দিন পর্যন্ত খেলে রতিশক্তি বৃদ্ধি প্রাপ্ত হয় ।

সহবাসে স্থায়িত্ব বৃদ্ধির উপায়


১১। লাল আপাঙ্গের গাছ সোমবারে জাগান দিয়ে মঙ্গলবার সকালে বাসি মুখে তুলে উক্ত শিকড়কে মাদুলীতে ভরে কোমড়ে বেঁধে রাখলে শুক্র স্তম্ভন হয় ।

১২। হরিতকী, শিলাজুত, বিড়ঙ্গ সম ওজনের নিয়ে চূর্ণ করে উক্ত চূর্ণের আধ তোলা নিয়ে ঘৃত সহ সেবন করলে বৃদ্ধ ব্যক্তি যুবকের ন্যায় শক্তি লাভ করবে ।


১৩। শ্মশানজাত নীল গাছের শিকড় শনিবার তুলে মাদুলীতে ভরে কোমরে ধারন করলে শুক্র স্তম্ভন হয় ।

১৪। ক্রিকুট, ত্রিফলা, কুড়, ভীমরাজ, সৈন্ধব লবন, ধনে, কটফল, তালিশপত্র, নাগকেশর, জিরা, যোয়ান, যষ্টিমধু, মেথী, কালজিরা এবং তেজপাতা প্রতিটি সমপরিমান নিয়ে শুষ্ক ও চূর্ণ করবে । তারপর ঐ চূর্ণগুলির সমান সিদ্ধি বিচা ঘৃতে ভেজে চূর্ণ করে নিয়ে উপরোক্ত চূর্ন গুলির সঙ্গে মিশিয়ে দিবেন । তাপর ঐ সমস্ত চুর্ণগুলি একত্রে যত হবে সেই পরিমাণ চিনি মিশাবে । তাপর ঘৃত এবং মধু এরূপভাবে দিবে যেন বড়ি তৈরি হয় । পরে চার আনা ওজনের আন্দাজ বড়ি তৈরি করে উক্ত বড়িগুলির উপরে ঘিয়ে ভাজা তিল চূর্ণ, দারুচিনি চূর্ণ, ছোট এলাচ চূর্ণ,তেজপাতা চূর্ণ ও কার্পুর চূর্ণ ছড়িয়ে দিয়ে সুগন্ধ করে নিবে । পরে প্রত্যহ দুবেলা দুটি বড়ি এক বলকের দুগ্ধ দিয়ে সেবন করলে বৃদ্ধ ব্যক্তি যুবকের ন্যায় শক্তিমান হবে ।

১৫ । শতমূলী রস আধ সের, দুগ্ধ চার সের, পানি ষোল সের একত্রে বড় মাটির পাত্রে দিয়ে মৃদু আছে সিদ্ধ করে চার সের থাকতে নামিয়ে উক্ত ক্কাথ পান করলে ইন্দিয়শক্তি বৃদ্ধি হয় । আর কখনও ইন্দ্রিয় শৈথিল্য হয় না ।



মেয়েদের কাম শক্তি বৃদ্ধির ঔষধ, মেয়েদের কাম শক্তি বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায়, সেক্সে বৃদ্ধির উপায় কি ওষুধ, ছেলেদের কাম শক্তি বৃদ্ধির ঔষধ, কাম শক্তি বৃদ্ধির গাছ, সেক্সে বৃদ্ধির ব্যায়াম, পুরুষত্ব বৃদ্ধির উপায়, পুরুষের সক্ষমতা বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায়, পুরুষের সক্ষমতা বৃদ্ধির ঔষধ, মেয়েদের কাম শক্তি বৃদ্ধির প্রাকৃতিক উপায়, যৌবন শক্তি বৃদ্ধির আমল, সেক্সে বৃদ্ধির উপায় কি ওষুধ, সেক্সে বৃদ্ধির খাবার, সহবাসে স্থায়িত্ব বৃদ্ধির উপায়, যৌবন শক্তি বৃদ্ধির গাছ, সেক্সে বৃদ্ধির ব্যায়াম, দীর্ঘ সময় মিলন করার ইসলামিক পদ্ধতি, পুরুষের স্থায়িত্ব বৃদ্ধির উপায়, মেয়েরা কত সময় মিলন করতে পারে, স্থায়িত্ব বৃদ্ধির ঔষধ, সহবাসের আনন্দ পাওয়ার উপায়, স্থায়িত্ব বৃদ্ধির হোমিও ঔষধ, দীর্ঘ সময় সহবাস করার প্রাকৃতিক ঔষধ, সঙ্গম করার পদ্ধতি ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন