দাঁতের পোকা বের করার গাছ

১০৮ গাছা দুর্বা, আগের দিন তুলে ধুয়ে রাখবেন। বাডুলীর একটি সম্পূর্ণ শিকড়, উপরের ডাল পাতা-অংশ বাদ দিয়ে জলে ধুয়ে পরিষ্কার করে রাখবেন। প্রমাণ মাপের একট
দাঁতের পোকা কিভাবে বের করা যায়, দাঁতের পোকা বের করার মন্ত্র, দাঁতের পোকা দেখতে কেমন, দাঁতের পোকা দূর করার ঘরোয়া উপায়, দাঁতের পোকা দূর করার ওষুধ, দাঁতের ক্ষয় পূরণ, দাঁতের ব্যথার গাছ, দাঁতের গর্ত দূর করার ঘরোয়া উপায়,

দাঁতের পোকা বের করার ঔষধ

১০৮ গাছা দুর্বা, আগের দিন তুলে ধুয়ে রাখবেন। বাডুলীর একটি সম্পূর্ণ শিকড়, উপরের ডাল পাতা-অংশ বাদ দিয়ে জলে ধুয়ে পরিষ্কার করে রাখবেন। প্রমাণ মাপের একটি রসুনের প্রায় আধখানা ও একটা কলার আগপাতা দরকার ।


শনি বা মঙ্গলবারে রোগী সকালে উঠে পায়খানা যাওয়ার, মুখ ধুয়ার বা কোন কিছু খাওয়ার আগে, মুখ খুলে হাঁ করে মাটির দিকে মুখ করে বসবেন। মুখের নিচে কলা পাতার টুকরা থাকবে। অন্য একজন আগের দিন তুলে রাখা দুর্বা, বাডুলীর শিকড় ও রসুন রোগীর মুখের একটু নিচে রেখে দুইহাতে খুব রগরাতে থাকবে। আগে শিকড়টি ও রসুন থেঁতলে নিলে এসবের ঝাঁজ একটু ভাল পাওয়া যাবে। রোগী সবসময় হাঁ করে মুখ নিচু করে রাখবে। কিছুক্ষণ পরে নিচের পাতায় ও হাতের উপর ছোট ছোট সাদা লম্বা জীবন্ত পোকা দেখা যাবে। পোকাগুলি লাফ দিয়ে ছিটকে পড়ে। মুখ হাঁ করে ভাল রকম নিচু করা না থাকলে ও মুখ পুরোপুরি খোলা না থাকলে পোকাগুলি (Maggots) ছিটকে মুখের ভিতরেই একদিক থেকে আর এক দিকে থেকে যাবে।


দাঁতের গোড়া বেশী ফোলা থাকলে প্রথম দিন পোকা বার নাও হতে পারে । একদিন পোকা না পড়লে আরো এক দিন চেষ্টা করবেন। পোকা থাকলে পড়বেই। বেশী জরুরী প্রয়োজনে শনি মঙ্গলবার ছাড়াও ঔষধ ব্যবহার করা যায় । একদিন পোকা বার হলে রোগ নির্মূল নাও হতে পারে । কারণ পোকা পড়লেও যদি পোকার ডিম থেকে থাকে তবে তা পড়ে না। কাজেই আবার চিকিৎসা দরকার।


বাসি হুকোর জল দিয়ে কুলকুচি করলে যাবতীয় দন্তরোগ প্রশমিত হয় । হিং গরম করে দাঁতে লাগালে দাঁতের পোকা নষ্ট হয় ।


দাঁতের পোকা কিভাবে বের করা যায়, দাঁতের পোকা বের করার মন্ত্র, দাঁতের পোকা দেখতে কেমন, দাঁতের পোকা দূর করার ঘরোয়া উপায়, দাঁতের পোকা দূর করার ওষুধ, দাঁতের ক্ষয় পূরণ, দাঁতের ব্যথার গাছ, দাঁতের গর্ত দূর করার ঘরোয়া উপায়,

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন